শিরোনাম

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক

০৯/০৮/২০২২ তারিখ গ্রামীণ ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন গ্রামীণ ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. একেএম সাইফুল মজিদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পরিচালনা পর্ষদেও সম্মানিত পরিচালক জনাব মোঃ জসিম উদ্দীন, গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মোঃ মোসলেহ উদ্দীন, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মোঃ ছাইদুজ্জামান ভূঞা, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব নূর মোহাম্মদ এবং অন্যান্য নির্বাহীবৃন্দ। ব্যাংক কর্তৃপক্ষের আলোচনায় নিন্মোক্ত বিষয়গুলি উত্থাপিত হয়:
পরিচালনা পর্ষদের বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. একেএম সাইফুল মজিদ এর নির্দেশনায় এবং বর্তমান প্রশাসনের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক। মার্চ,২০২০ এ চেয়ারম্যান হিসেবে যোগদান করেই অধ্যাপক ড. একেএম সাইফুল মজিদ সর্বপ্রথম প্রাতিষ্ঠানিকভাবে যথাযোগ্য মর্যাদায় সকল জাতীয় দিবস পালনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এরই ধারাবাহিকতায় পরিবেশ বিপর্যয় রোধ, টেকসই বাংলাদেশ গঠন, ঋণ গ্রহীতা সদস্যদের পুষ্টির অভাব পূরণ এবং সম্পদ সৃষ্টির লক্ষে ২০২১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গ্রামীণ ব্যাংক সর্বপ্রথম সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি শুরু করে ৩১ শে জুলাই ২০২৩ পর্যন্ত গ্রামীণ ব্যাংক দেশ ব্যাপী সর্বমোট ২৭ কোটি ৪৩ লক্ষ গাছের চারা রোপন করেছে। ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে গ্রামীণ ব্যাংক সারাদেশে আরো ৩ কোটি গাছের চারা রোপন করার মহা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
পরিচালনা পর্ষদের অভিভাবকত্বে এবং প্রশাসনের সফল নেতৃত্বে সকল উন্নয়ন সূচকে গ্রামীণ ব্যাংক বর্তমানে ২০১০ সালের (ড. মুহাম্মদ ইউনূসের আমল) তুলনায় তার ইতিহাসে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে আছে। ২০১০ সালের তুলনায় সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ২১ লক্ষ, আদায়যোগ্য ঋণ বৃদ্ধি পেয়েছে ৬৫৪০ কোটি টাকা, আমানত বৃদ্ধি পেয়েছে ১২২৯১ কোটি টাকা। নীট মুনাফা বেড়েছে ১৬২.৯০ (সালতামামী ২০২২) কোটি টাকা।
গ্রামীণ ব্যাংক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর দারিদ্র বিমোচনে এ পর্যন্ত ২ লক্ষ ৮৮ হাজার ৪৭ কোটি টাকা জামানতবিহীন ঋণ বিতরণ করেছে। গ্রামীণ ব্যাংকের ২০২২ সালের দারিদ্র বিমোচন জরিপ অনুয়ায়ী ৬৭.৪০% সদস্য দারিদ্রসীমা থেকে বেরিয়ে এসেছে।
গ্রামীণ ব্যাংক ক্ষুদ্র ঋণ কর্মসূচির পাশাপাশি ঋণগ্রহীতা সদস্যদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে (ছেলে-মেয়ে) শিক্ষাবৃত্তি, শিক্ষাঋণ ও নবীন উদ্যোক্তা ঋণ প্রদান করছে । গ্রামীণ ব্যাংক জুন, ২০২৩ পর্যন্ত ৬৮ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকা শিক্ষাবৃত্তি, ৪০২ কোটি টাকা উ”চ ও নার্সিং শিক্ষাঋণ এবং ১২ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা নবীন উদ্যোক্তা ঋণ প্রদান করেছে। ভিক্ষুক মুক্ত দেশ গড়ার লক্ষ্যে ৮৩ হাজার ৩৬৭ জন ভিক্ষুককে বিনাসুদে ১৮.৭৭ কোটি টাকা ঋণ প্রদান করেছে।
২০২০-২০২১ সালে করোনা মহামারীর সময় ২০ হাজার ৫৫৬ জন সংগ্রামী সদস্যকে (ভিক্ষুক) ১০ কোটি ৯৭ লক্ষ টাকার খাদ্য ও নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছে। সিলেট ও সুনামগঞ্জ অঞ্চলে ২০২২ সালের ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সদস্যদের দূর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলায় পূণর্বাসন কর্মসূচির আওতায় ৩৫.৬৮ লক্ষ টাকা পূণর্বাসন ঋণ প্রদান করা হয়েছে।
গ্রামীণ ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদ ও সম্মানিত চেয়ারম্যান মহোদয়ের উদ্যোগে গ্রামীণ ব্যাংকের সহকর্মীদের জন্য পদোন্নতি নীতিমালা প্রনয়ণ করে জুলাই, ২০২৩ সাল পর্যন্ত ৭৪৪৩ জন কে পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বিভিন্ন সুবিধা সহ নিজস্ব আইটি সক্ষমতা অর্জনে গ্রামীণ ব্যাংক অটোমেশন প্রজেক্ট শুরু করা হয়েছে এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে দক্ষ করে গড়ে তোলার লক্ষে একটি আধুনিক কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে।
গ্রামীণ ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদ ও সম্মানিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. একেএম সাইফুল মজিদ মহোদয়, পরিচালনা পর্ষদের সম্মানিত পরিচালক মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব জনাব মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন, সম্মানিত পরিচালক জনাব মোঃ জসীম উদ্দিন মহোদয়ের প্রত্যক্ষ নির্দেশনা, সহযোগীতা এবং পরামর্শে ম্যানেজমেন্টের গতিশীল নেতৃত্বে গ্রামীণ ব্যাংক অগ্রগতি, শৃঙ্খলা, সুশাসন ইত্যাদি সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। এভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখে দেশের প্রান্তিক পর্যায়ে দারিদ্র বিমোচন, শিক্ষা প্রসার, স্ব-কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং পরিবেশ রক্ষায় সক্রিয়ভাবে যুক্ত থেকে দেশের অনগ্রসর প্রান্তিক দারিদ্র জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় নিয়ে এসে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে গ্রামীণ ব্যাংক ।

আরও দেখুন

জনাব জাকিয়া রউফ চৌধুরী ব্যাংক এশিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত

জনাব জাকিয়া রউফ চৌধুরী সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় ব্যাংক এশিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *