শিরোনাম

২০২৪ সালের জন্য ‘সহজ’-এর ‘হাইওয়ে টু রানওয়ে’ ক্যাম্পেইন

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন টিকেটিং প্ল্যাটফর্ম সহজ, ‘হাইওয়ে টু রানওয়ে’ শীর্ষক একটি নতুন ক্যাম্পেইনের ঘোষণা দিয়েছে। উক্ত ক্যাম্পেইনে বিজয়ীরা বাসের টিকেট-কে বিমান টিকেটে আপগ্রেড করার সুযোগ পাবেন কোন বাড়তি খরচ ছাড়াই।

সহজের সম্প্রতি অনুষ্ঠিত কর্পোরেট আউটিং ইভেন্ট, ‘সহজ – আওয়ার জার্নি ফ্রম হাইওয়ে টু রানওয়ে’তে এই ঘোষণা দেয়া হয়। সেসময় গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানের প্রতি সহজের প্রতিশ্রুতি এবং ২০২৪ সালের পরিকল্পনাগুলো উপস্থাপন করা হয়।

সহজ-এর প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মালিহা কাদির বলেন, “আমরা ‘হাইওয়ে টু রানওয়ে’ ক্যাম্পেইনটি নিয়ে বেশ আশাবাদী, কারণ এখানে উদ্ভাবনী চিন্তা ও গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জনে আমাদের নিরলস প্রচেষ্টা প্রতিফলিত হয়। আমরা ডিজিটাল টিকেটিং খাতকে নতুন আঙ্গিকে সাজিয়ে, সৃজনশীল সমাধানের মাধ্যমে গ্রাহকদের প্রত্যাশা পূরণে কাজ করে যাচ্ছি।”

অনলাইন টিকেটিং পরিষেবাকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে, এই ক্যাম্পেইন গ্রাহকদের সড়ক ভ্রমণের অভিজ্ঞতাকে বিমান ভ্রমণের অভিজ্ঞতায় আপগ্রেড করার সুযোগ দিবে। ২০২৪ সালে ডিজিটাল টিকেটিং খাতে নিজেদের অগ্রদূত হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে এবং টিকেটিং পরিষেবায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আনতে ক্যাম্পেইনটি বিশেষ ভূমিকা পালন করবে।

ইভেন্টে, ২০২৪ সালের জন্য সহজ নতুন কিছু পরিকল্পনা সামনে নিয়ে আসে যার আওতায় ‘সহজ বন্ধু’ নামক একটি বেশ সুপরিচিত রেফারেল প্রোগ্রামকে নতুন করে চালু করার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এই প্রোগ্রামটি গ্রাহকদের আরও উন্নত সেবা প্রদানে ও তাদের সাথে সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

বিগত বছরগুলোয় প্রতিষ্ঠানটির ধারাবাহিক সাফল্যের পেছনে থাকা কর্মকর্তাদের বিশেষ স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। এছাড়াও সৌহার্দ্য বজায় রেখে প্রাতিষ্ঠানিক সাফল্যে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালনকারীদের বিশেষ সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। ইভেন্টে সহজের কর্মীদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ আয়োজনটিকে আরও প্রাণবন্ত করে তুলে।

গতানুগতিক কর্পোরেট ইভেন্ট থেকে কিছুটা ভিন্ন আঙ্গিকে এই ইভেন্টটি সাজানো হয়, যেখানে অংশগ্রহণকারীদের বিনোদনের জন্য টিম-বিল্ডিং অ্যাক্টিভিটিজ, পপ-কালচার-থিমড পার্টি, ডিজে পার্টি-সহ বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে উপস্থিত সকলকে অনবদ্য এক অভিজ্ঞতা প্রদান করা হয়।

সহজের ‘সহজ: আওয়ার জার্নি ফ্রম হাইওয়ে টু রানওয়ে’ ইভেন্টটি নিজেদের কর্মপরিধি বিস্তৃত করা এবং গ্রাহকদের জীবনকে সহজ ও গতিশীল করার প্রতি তাদের প্রতিশ্রুতিকে তুলে ধরে। দেশের অনলাইন টিকেটিং খাতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে এবং শীর্ষস্থানীয় পরিষেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেদের অবস্থান মজবুত করতে সহজ সর্বদা সচেষ্ট।

আরও দেখুন

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হলেন আরো ২ জন

দেশের সুপারব্র্যান্ড ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হয়েছেন আরো দুই ক্রেতা। তারা হলেন জামালপুর সদরের মাহমুদুল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *