শিরোনাম

অনুষ্ঠিত হলো ‘মুজিবের বাংলাদেশ- বিমান হাফ ম্যারাথন ২০২৩

জাতীয় পতাকাবাহী সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস কর্তৃক আজ ৩ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার হাতিরঝিল এলাকায় জাকজমকপূর্ণভাবে আয়োজিত হয়েছে ‘মুজিবের বাংলাদেশ-বিমান হাফ ম্যারাথন ২০২৩’ (Mujib’s Bangladesh Biman Half Marathon 2023)। প্রতিযোগিতায় ২১.১ কিলোমিটার ও ৭.৫ কিলোমিটারের দুইটি ইভেন্টে দেশি-বিদেশি প্রায় ২০০০ প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। হাতিরঝিল পুলিশ প্লাজা থেকে ভোর ০৬:০০ টায় দৌড় প্রতিযোগিতা শুরু হয়।

ম্যারাথন শেষে সকাল ০৭:৩০টায় হাতিরঝিল অ্যাম্ফিথিয়েটারে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ মাহবুব আলী, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিমান পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক সিনিয়র সচিব জনাব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব জনাব মোঃ মোকাম্মেল হোসেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও জনাব শফিউল আজিম। রেস ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বিমানের মহাব্যবস্থাপক জনাব শাকিল মেরাজ।
২১.১ কিলোমিটার দৌড় প্রতিযোগিতায় তিনজন নারী, তিনজন পুরুষ ও তিনজন ভেটেরানকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এ বিভাগে প্রথম পুরস্কার ছিল ৭০,০০০টাকা এবং দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার ছিল যথাক্রমে ৫০,০০০ ও ৩০,০০০ টাকা। ৭.৫ কিলোমিটার দৌড় প্রতিযোগিতায় তিনজন নারী ও তিনজন পুরুষকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কারের অর্থমূল্য যথাক্রমে ৫০০০০, ৩০০০০ ও ২০০০০টাকা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ মাহবুব আলী বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশের জাতীয় পতাকাকে ধারণ করে বিশ্বের বিভিন্ন শহরে বিমান যাবে এবং বিশ্বের উন্নত এয়ারপোর্টগুলোতেও বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে। সেই স্বপ্ন বাস্তবে রূপ দিতে আমরা টরন্টো ফ্লাইট চালু করেছি। নারিতায় আমরা ফ্লাইট চালু করব। আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের বিমানের তারুণ্যদ্বীপ্ত বহর রয়েছে। বিমানের যাত্রীসেবা উন্নয়নেও আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি। বিমান কর্তৃক হাফ-ম্যারাথন প্রতিযোগিতা আয়োজন করায় সংশ্লিষ্টদেরকে তিনি ধন্যবাদ জানান এবং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদেরকে শুভেচ্ছা জানান।

বিমান পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান জনাব মোস্তফা কামাল উদ্দীন বলেন, সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশকে পরিচিত করার জন্য সর্বপ্রথম জাতির পিতা যেসব প্রতিষ্ঠানের উপর গুরুত্ব দিয়েছিলেন তার একটি হলো বিমান। বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে ব্র্যান্ডিং করছে বিমান। তৃতীয় টার্মিনাল চালু হলে বিমানের কলেবর আরও বৃদ্ধি পাবে, সেবার মানও বৃদ্ধি পাবে।

বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও জনাব শফিউল আজিম বলেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৫১ বছর পূর্ণ করেছে। দীর্ঘ এ পথচলায় পাশে থাকার জন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান। এছাড়াও বিমানের হাফ ম্যারাথন আয়োজনের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। তিনি জানান, বর্তমান গন্তব্যের পাশাপাশি সামনে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বিমানের নেটওয়ার্ক সম্প্রসারিত করা হবে।

আরও দেখুন

ট্যালি সলিউশন আয়োজিত ‘এমএসএমই সম্মাননা’ এর চতুর্থ আসরের মনোনয়ন শুরু

বিজনেস ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার সরবরাহকারী আর্ন্তজাতিক প্রতিষ্ঠান ট্যালি সলিউশন চতুর্থবারের মতো তাদের ‘এমএসএমই সম্মাননা’ অনুষ্ঠানের মনোনয়ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *