শিরোনাম

বিভাগীয় পদোন্নতি পরীক্ষা-২০২২ এর ক্যাম্প প্রশিক্ষণ ও প্যারেড পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
আজ মঙ্গলবার,২৭সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রিঃ সকাল ১১.০০ টায় পুলিশ লাইন্স জামালপুরে বিভিন্ন পদ-পদবির পুলিশ কর্মকর্তা-কর্মচারীগণের বিভাগীয় পদোন্নতি পরীক্ষার ক্যাম্প প্রশিক্ষণ ও প্যারেড পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

১৫ দিনের কঠোর ক্যাম্প প্রশিক্ষণ শেষে প্রশিক্ষণার্থীরা আজ চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।

নিম্মোক্ত পদ সমূহে পদোন্নতির জন্য পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় –
১। কনস্টবল হতে নায়েক।
২। নায়েক হতে এএসআই (সশস্ত্র)।
৩। এএসআই (সশস্ত্র) হতে এসআই (সশস্ত্র)।
৪। কনস্টেবল হতে এটিএসআই।
৫। এটিএসআই হতে টিএসআই ।

পরীক্ষা গ্রহণ করেন জামালপুর জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার ও জামালপুর জেলার বিভাগীয় পদোন্নতি পরীক্ষা বোর্ডের সম্মানিত সভাপতি জনাব নাছির উদ্দিন আহমেদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বোর্ডের অন্য তিন সদস্য, জনাব মোঃ হান্নন মিয়া,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার,(সদর সার্কেল) শেরপুর,জনাব সুমন মিয়া, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(ইসলামপুর সার্কেল), জনাব মোঃ আতাউর রহমান, আরআই (ভারপ্রাপ্ত), পুলিশ লাইন্স জামালপুর সহ সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা বৃন্দ ও পরীক্ষার্থীগণ।

আরও দেখুন

চুয়েটে হুয়াওয়ের ক্যাম্পাস রিক্রুটমেন্ট অনুষ্ঠিত

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) ক্যাম্পাস রিক্রুটমেন্টের আয়োজন করেছে বিশ্বের অন্যতম তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটরে অনুষ্ঠিত এমসিকিউ ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে সম্প্রতি এ রিক্রুটমেন্ট সম্পন্ন করা হয়। চুয়েটের সিএসই, ইইই ও ইটিই বিভাগের প্রায় ২০০ শিক্ষার্থী এতে অংশগ্রহণ করে। সেখান থেকে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা হুয়াওয়ের সাথে কাজ করার সুযোগ পাবে। এই ইভেন্ট পরিচালনা করেন হুয়াওয়ে সাউথ এশিয়ার সিনিয়র এইচআর ম্যানেজার মো. ফারা নেওয়াজ, এইচআর ম্যানেজার ইফতেখার রহমান ও এইচআর এক্সিকিউটিভ মো. খালিদ হুসাইন। এ সময় চুয়েটের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. জামাল উদ্দীন আহাম্মদ উপস্থিত ছিলেন। এ বিষয়ে মো. ফারা নেওয়াজ বলেন, “বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা অনেক মেধাবী এবং তাদের মেধার সঠিক পরিচর্যা করা প্রয়োজন। এ কারণেই প্রয়োজনীয় দক্ষতা, উপযুক্ত কর্মপরিবেশ ও সুযোগ-সুবিধা দেয়ার মাধ্যমে তাদের মেধাকে সমৃদ্ধ করার জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরিতে হুয়াওয়ে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। সম্পূর্ণভাবে সংযুক্ত ও বুদ্ধিবৃত্তিক বাংলাদেশ গড়ার যে লক্ষ্য হুয়াওয়ের রয়েছে, সেটিকে এগিয়ে নিতে এসব শিক্ষার্থীদের মাঝে যে আগ্রহ রয়েছে, তা প্রশংসনীয়। বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মের জন্য এই ধরনের কাজের ধারাবাহিক সুযোগ তৈরি ও এটিকে আরো সম্প্রসারণ করার জন্য আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।” অধ্যাপক ড. জামাল উদ্দীন আহাম্মদ বলেন “হুয়াওয়ের এই ক্যাম্পাস রিক্রুটমেন্ট আয়োজন আমাদের শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন সুযোগ তৈরি করলো। এর মধ্যে দিয়ে আমাদের যেসব শিক্ষার্থীর নতুন কিছু করার উচ্চাকাঙ্খা আছে, তারা স্বপ্ন পূরণের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *